সেক্সে কমানোর উপায় কি জানুন

      Comments Off on সেক্সে কমানোর উপায় কি জানুন
সেক্সে কমানোর উপায় কি জানুন
4.2 (83.33%) 6 votes

সেক্সে কমানোর উপায় জানা থাকলে অযাচিত যৌনাকাঙ্খা থেকে বাঁচা যায়। জীবনকে সুন্দর ও সহজ করে তুলতে আপনার প্রয়োজন সেক্স। তবে শুধু সেক্স হলেই হবে না, সেক্স হতে হবে আনন্দদায়ক। অতিরিক্ত যৌনাকাঙ্খা কোনো লজ্জার বিষয় নয়। অনেক মহিলা-পুরুষেরই স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি যৌনাকাঙ্খা থাকে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, এটি প্রকৃতিগত একটি ব্যাপার। তবে বিষয়টি নিয়ে অনেকেই নানান ধরনের সমস্যায় পড়েন। আদৌ অতিরিক্ত যৌনাকাঙ্খা বা সেক্সে কমানোর উপায় আছে কি? স্বাভাবিক নারী-পুরুষ উভয়েরই অতিরিক্ত যৌনাকাঙ্খা থাকতে পারে এবং অনেকে সময় মতো বিবাহ করতে না পারার কারণে অথবা অকালে স্ত্রীর মৃত্যু বা বিধবা হওয়ার কারণে তাদের যৌন চাহিদা পূরণ করতে পারেন না এবং এই সমস্যার জন্য তারা নানান সামাজিক বিপদ ও বিড়ম্বনায় পড়েন। নিজের অজান্তেই তারা বিভিন্ন ধরনের শারীরিক অঙ্গভঙ্গির মাধ্যমে তাদের যৌন উত্তেজনার প্রকাশ ঘটিয়ে ফেলেন।

সেক্সে কমানোর উপায়

সেক্সে কমানোর উপায় যেনে নিন

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

অতিরিক্ত যৌনাকাঙ্খা কমাতে খাদ্যাভ্যাসে কিছুটা পরিবর্তন আনা উচিত। যেমন যেসব খাবার খেলে শরীর উত্তেজিত হয়ে ওঠে, সেই সব খাবার পরিত্যাগ করা। প্রয়োজনে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া দরকার। তবে সাবধান। কোনও আজেবাজে হাতুড়ে ডাক্তার নয়। কারণ, আজকাল বাজারে যৌন সমস্যা নিয়ে হাজারো হাতুড়ে চিকিৎসকের আবির্ভাব হয়েছে। কিছু খাবার আছে যেগুলো খেলে যৌনাকাঙ্খা কমে। তবে অবশ্যই বেশী পরিমানে খাওয়া উচিত নয়। এসব খাবার বেশি খেলে যৌন জীবনে প্রভাব ফেলতে পারে।

পনির – গাভীর দুধ থেকে তৈরি পনিরে সিনথেটিক হরমোনে ভর্তি থাকে। এই হরমোন এস্ট্রোজেন, টেস্টোস্টেরন এবং শরীরের অন্যান্য হরমোনের স্বাভাবিক প্রস্তুত প্রক্রিয়াকে ব্যহত করে।

পুদিনা পাতা – মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে পারে মিন্ট, যেটার প্রাকৃতিক উৎস হল পুদিনা-পাতা। তবে এর অতিরিক্ত ব্যবহার পুরুষের যৌনস্বাস্থ্যের উপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। পুদিনা পাতার মেনথল টেস্টোস্টেরন হরমোনের পরিমাণ কমায়। ফলে পুরুষের ‘সেক্স ড্রাইভ’ কমে যায়।

কর্ন ফ্লেক্স – কর্ন ফ্লেক্সের উদ্ভাবক ড. জন হার্ভে কেলগ বিশ্বাস করতেন যে, মিষ্টি বা ঝালজাতীয় খাবার যৌন আকাঙ্ক্ষা বাড়ায়। আর চিনিছাড়া শস্যজাতীয় খাবার এই আকাঙ্ক্ষাকে নষ্ট করে। সম্ভবত কর্ন ফ্লেক্সে থাকা শস্যকণা যৌন আকাঙ্ক্ষাকে নষ্ট করে।

কফি – কফিতে থাকা ক্যাফেইন যৌনকাজ করার ক্ষমতা বাড়াতে পারে। তবে ক্যাফেইন যদি অবসাদ বোধ করায় তবে তা যৌনাঙ্ক্ষাও কমিয়ে দিতে পরে। অনেকেই ক্যাফেইনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে অভিযোগ করে থাকেন।

চকলেট – পুরুষের যৌনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে চকলেট। বিশেষজ্ঞদের মতে, চকলেটকে সাধারণত যৌন উত্তেজক খাবার মনে করা হয়ে থাকে। কারণ এটি ভালোবাসা এবং উত্তেজনা জাতীয় অনুভূতিগুলো বাড়ায়। তবে এটি টেস্টোস্টেরনের পরিমাণও কমিয়ে দেয়— জানান যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক চিকিৎসক ড. মাইকেল হির্ট।

মাইক্রোওয়েভে তৈরি পপকর্ন – সিনেমা দেখতে দেখতে পপকর্ন খেতে বেশ লাগে। তবে গামলা ভর্তি পপকর্ন ‘মুড’ খারাপ করে দিতে পারে। বিশেষ করে পুরুষদের ক্ষেত্রে এটা প্রযোজ্য। মাইক্রোওয়েভে তৈরি করা যায় এরকম পপকর্নের ব্যাগের ভেতর থাকে পারফ্লুরোকটানোইক অ্যাসিড যা যৌনাকাঙ্ক্ষা কমায়। এমনকি দীর্ঘ সময়ের ক্ষেত্রে প্রস্টেইট সমস্যাও হতে পারে।

ডায়েট সোডা বা পানীয় – কৃত্রিম মিষ্টিযুক্ত খাবার ও পানীয় দুটোই যৌনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। বিশেষত, অ্যাসপারটামে নামক কৃত্রিম মিষ্টি সরাসরি সেরোটনিন হরমোনের উপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। সুখকর অনুভূতির জন্য এই হরমোন খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

মানসিক ভাবে সেক্সে কমানোর উপায়

আমাদের প্রত্যেকেরই জৈবিক চাহিদা রয়েছে। আপনার যখন প্রচন্ড সেক্স করতে ইচ্ছা করবে তখন আপনার পছন্দের অন্য কোন কাজ নিয়ে নিজেকে ব্যস্ত রাখতে পারেন। খেয়াল করতে পারেন কোন কাজে ব্যস্ত থাকলে আপনি আপনার জৈবিক চাহিদার কথা একেবারে ভুলে যেতে পারেন। যদি কাজ না হয় তবে অন্য কোন পছন্দের কাজ দিয়ে চেষ্টা করে দেখতে পারেন। পর্ণ ভিডিও দেখা বা চটি গল্প পড়া বাদ দিন এবং এর বদলে ভালো সিনেমা, নাটক বা বই পড়ার প্রতি মনযোগ দিতে পারেন। সামাজিক যোগাযোগ বৃদ্ধি করুন। ঘোরাঘুরি করা বা গল্প করে বন্ধুদের সাথে সময় কাটানো, আপনার শখের কাজ ইত্যাদি নিয়ে নিজেকে ব্যস্ত রাখতে পারেন। নিয়মিত  খেলাধুলা বা ব্যায়াম করতে পারেন। সবশেষ কথা ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলুন।

2,128 total views, 7 views today

পোস্টটি শেয়ার করতে চাইলে

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন